বুধবার, আগস্ট ২১, ২০১৯
প্রথমপাতা > খেলা > মাশরাফির ছবি ভাইরাল!

মাশরাফির ছবি ভাইরাল!

যেনো শৈশবে ফিরে গেলেন তিনি! ভ্যানে চড়ে পলিথিনে করে বরই খেলেন। কে বলবে তিনি বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক! কে বলবে তিনি একজন সংসদ সদস্য! এ দৃশ্যতো বর্তমান বাংলাদেশে বিরল। সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর গতকাল বৃহস্পতিবার খেলার মাঠের মতো এমনি এক নতুন চমক দেখালেন মাশরাফি বিন মুর্তজা।

গতকাল নিজ নির্বাচনী এলাকা নড়াইলের লোহাগড়া পরিদর্শনে যান বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক ও নড়াইল-২ আসনের এ সংসদ সদস্য (এমপি)। এলাকা পরিদর্শনে বের হয়ে ভ্যানে বসে খাচ্ছেন বরই। এমনি কয়েকটি ছবি গতকাল থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে।

ছবিতে দেখা যায়, বরই ভর্তি একটি সবুজ পলিথিন হাতে নিয়ে ভ্যানে বসে আছেন মাশরাফি। রাস্তার পাশে থাকা শিশুরাও তার কাছ থেকে হাত পেতে বরই নেয়ার চেষ্টা করছে। মাশরাফিও যেনো রাস্তার পাশে থাকা সকলের মাঝে বরই বিলিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছেন। মাঝেমধ্যে  দু’একটি করে বরই মুখে দিচ্ছেন তিনি।

এমন দৃশ্য দেখে কে বলবে তিনি একজন এমপি! কে ভাববে তিনি একজন জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক!

সায়েবা উম্মে রহমান নামে একজন ফেসবুকে লিখেছেন, ‘আহা! এমপি সাহেব ভ্যান এ ঘুরে ঘুরে বরই খাচ্ছেন। কেউ নজর দিয়েন না কিন্তু।’

আসিফ হাসান নামে একজন লিখেছেন, ‘বাংলাদেশের কোন এম্পি (এমপি) এমনি ভ্যানে করে ঘুরে? ম্যাশ বলেই সম্ভব! বরই তো বেশ মজা।’

বরই খাওয়ার ছবি শেয়ার দিয়ে রিয়াদ মল্লিক লিখেছেন, ‘বাংলাদেশের কোন এম্পি (এমপি) এমনি ভ্যানে করে ঘুরে? মাশরাফি ভাইয়া বলেই সব সম্ভব। আর পলিথিনে করে বরই আহ দাদা লোভ লাগছে ভিষণ (ভীষণ) বরই খাব!’

বৃহস্পতিবার এলাকায় গিয়ে দুপুরে মাশরাফি লোহাগড়া উপজেলার মধুমতি নদী ভাঙন এলাকা পরিদর্শনে বের হন। এ সময় নদী ভাঙন কবলিত জয়পুর এবং কোটাকোল ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের ভাঙনে ভুক্তভোগেী মানুষের খোঁজ-খবর নেন। ভাঙন প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্যে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বানও জানান তিনি।

এর আগে সকালে মাশরাফি নড়াইলে নিজ বাড়ি থেকে লোহাগড়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। এ সময় মাশরাফির আসার খবর পেয়ে তাকে এক নজর দেখার জন্য শত শত মানুষ ভিড় করেন এবং তার সাথে ছবি তোলার হিড়িক পড়ে যায় শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধ বয়সীদের মাঝে।

এ সময় এমপি মাশরাফির সাথে আরও উপস্থিত ছিলেন- জেলা প্রশাসক আঞ্জুমান আরা, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) কাজী মাহবুবুর রশীদ, পানি উন্নয়ন বর্ডের কর্মকর্তারাসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ।

*মাহমুদুল হক সোহাগ, শিক্ষার্থী, সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়।

ফেসবুক থেকে মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।