মঙ্গলবার, নভেম্বর ১৯, ২০১৯
প্রথমপাতা > ২০১৯ > ফেব্রুয়ারী

বিভাগের নবীন বরণ ও বিদায় সংবর্ধনা ২৩ ফ্রেব্রুয়ারি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগের নবীন বরণ ও বিদায় সংবর্ধনা আগামীকাল ২৩ ফ্রেব্রুয়ারি, শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান মিলনায়তনের সেমিনার কক্ষে অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম। বিভাগের ৪২তম আবর্তনের যেসকল শিক্ষার্থী স্নাতকোত্তর পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে তাদের জন্য বিদায় সংবর্ধনা এবং ৪৭তম আবর্তনের যেসকল শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় সফলতার সঙ্গে উত্তীর্ণ হয়ে বিভাগে পড়ালেখার সুযোগ করে নিয়েছে তাদের জন্য নবীন বরণের আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. মো. নূরুল আলম, মাননীয় উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মো. আমির হোসেন, মাননীয় কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক

বিস্তারিত পড়ুন

অধীশ্বরী

নদীর পাড়, তার সাথে জ্যোৎস্না। মনে হচ্ছে অন্য গ্রহে আছি। চারিদিকে কেমন পরজাগতিক রোশনাই। আমারতো নেশা লেগে যাচ্ছে। সিগারেটের ধোঁয়াও আমার সাথে কল্পনার প্রলেপ আঁকা প্রকৃতি উপভোগ করছে। নানাবাড়ি আসা হলো প্রায় ১২ বছর পর। ভালই লাগছে। শেষ বার এসেছিলাম নানা গত হবার পর। আর এলাম এই ইদে। আত্মীয়স্বজন আছেন গ্রামে অনেকেই। বাট শহর পোকারা গ্রামে এসে কুলোতে পারেনা। বসে আছি, রাত আটটার মত। একাই বেশ। ফোনে চার্জ নেই, ইলেট্রিসিটিও নেই। যাই হোক ব্যপার না। ফোন নিয়ে এখন আর মাথা ঘামাই না। অধীশ্বরী মিলিয়ে গেছে যে। সময় কি হঠাৎ থমকে গেছে, বুজতে পারছি না কেন। কি ব্যপার এখনও দেখছি আটটাই বেজে আছে।

বিস্তারিত পড়ুন

জাবিতে প্রথম বর্ষের ক্লাশ শুরু ২৪ ফেব্রুয়ারি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি হওয়া (৪৮তম আবর্তন) ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাশ আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি, রোববার থেকে শুরু হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার (শিক্ষা) এবং কেন্দ্রীয় ভর্তি পরিচালনা কমিটির সদস্য মো. আবু হাসান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিটিতে আরও জানানো হয়, প্রথম বর্ষে ভর্তিকৃত ছাত্র-ছাত্রীদেরকে এই মুহূর্তে হলে সীট বরাদ্দ করা সম্ভব হবে না। তবে তাদেরকে বিভিন্ন হলে সংযুক্ত করা হবে। পরবর্তীতে হলে আসন শূন্য হওয়া সাপেক্ষে স্ব স্ব হল প্রভোস্ট পর্যায়ক্রমে তাদের জন্য হলে সীট বরাদ্দের ব্যবস্থা করবেন। এই মুহূর্তে হলে সীট বরাদ্দ করা সম্ভব হবে না বিধায় ঢাকা থেকে এসে তাদের ক্লাশ করার সুবিধার্থে

বিস্তারিত পড়ুন

বিভাগের শিক্ষাসফর: যেন স্মৃতির জলসাঘর!  

জাকির হোসেন* চলছে আমাদের জাদুর গাড়ি। অজানা অদৃশ্য স্বপ্নপুরীর দিকে। সবার  মধ্যে দূর দ্বীপবাসিনীকে দেখার উত্তেজনা। বৃদ্ধ বয়সে বা কর্মব্যস্ত জীবনে সোনালী অতীত হয়ে থাকে বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের শিক্ষা সফর। শেষ বেলাতে অতীতের স্মৃতি রোমন্থন করতে গেলে কখনো শিক্ষা সফরের মজার বিষয়গুলো মিস হয় না। ছেলে-মেয়ে, নাতি-নাতনী সবাইকে মজার সময়ের কথা বলতে গেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাসফরের কথা আসবেই। শিক্ষাসফর হচ্ছে আমাদের দেশের শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের সৌন্দর্য্য। এমনই একটি গুরুত্বপূর্ণ স্মৃতি সংগ্রহ করতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগ শিক্ষা সফরে গিয়েছিল দ্বারুচিনি দ্বীপ খ্যাত সেন্টমার্টিনে। ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ তারিখ গোধূলির অস্তমিত বিকেলে ক্যাম্পাস থেকে শুরু হয় আমাদের যাত্রা। বাস বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক অতিক্রম করার সঙ্গে

বিস্তারিত পড়ুন

বসন্ত এসে গেছে…

আল আমীন* প্রকৃতিতে এখন শীতের রুক্ষতা কিংবা রিক্ততার কোন ছাপ নেই । বরং বৃক্ষের নগ্নশাখাকে ভরিয়ে তুলেছে নরম কচিপাতার দল। নবীন পত্রদলকে জায়গা করে দিতেই যেন প্রবীণরা সব ঝড়ে পড়েছিল শীতের শুষ্কতায়। নিষ্কলুষ কচিপাতায় রৌদ্র-ছায়ার রঙ্গীন খেলা চোখকে প্রশান্তিতে ভরিয়ে তুলছে। খানিক বিরতিতে বয়ে চলা ঝিরঝিওে মাতাল হাওয়া শুধু প্রকৃতিতে নয়, হৃদয়েও দোলা দিয়ে যাচ্ছে। বাতাসের মৃদু-মন্দ ঝাপসা মনকে উদাস করে দেয়। মূহুর্তেই ক্ষণিকের বাস্তবতাকে বহু দূরে ঠেলে দিয়ে হৃদয়ে কাঁপন তুলছে উদাসী এ হাওয়া। এখানে-ওখানে ফুটে থাকা বাহারি ফুলের রঙরাঙাতে চায় মনকেও, জাগাতে চায় হৃদয়পটে সুগোপনে লুকিয়ে থাকা ঘুমন্ত কোন কোন স্মৃতিশহরকে। মন যেন সহসাই বলে উঠে, “তবে কি বসন্ত

বিস্তারিত পড়ুন

ছবি তুলতে ড্রোন শিক্ষা….

থেমে থেমে ঝিরি ঝিরি হাওয়া বইছে। বিদায়ী শীতের এই উঞ্চ সকালে সূর্যের মৃদু-মন্দ তাপ গায়ে খুব একটা লাগছে না। আর লাগলেও তাকে খুব একটা পাত্তা দিচ্ছে না শিক্ষার্থীরা। তারা ভিড় করেছে নতুন কলা (কলা ও মানবিকী অনুষদ) ভবনের ছাদে। ছোট্ট একটি যন্ত্রকে ঘিরে উৎসুক ও অনিসন্ধিৎসু শিক্ষার্থীদের এ জমায়েত। তাতে নেতৃত্ব দিচ্ছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগের সভাপতি ও সহকারী অধ্যাপক জনাব উজ্জ্বল কুমার মণ্ডল, সহকারী অধ্যাপক জনাব সালমা আহমেদ ও অতিথি শিক্ষক জনাব কাজী রওনক জাহান। ফটো সাংবাদিকতা কোর্সের ক্লাস অথচ ফটো তোলা হবে সে তো আর হয়না! তাছাড়া এমন ঐতিহাসিক মুহূর্তকে ক্যামেরাবন্দি করতে হবেনা? যেই ভাবনা সেই

বিস্তারিত পড়ুন